ভোলায় চলছে একুশে বইমেলা।।মেলা পাঠকদের পদচারণায় মুখরিত

ভোলায় অবশেষে দুই বছর পর শুরু হয়েছে একুশে বইমেলা। দীর্ঘসময় পর বইমেলা হওয়ায় মেলায় ছিলো উপচেপড়া ভিড়। শিশু কিশোর-কিশোরী,যুবক-যুবতী,বয়স্ক সহ সকল মানুষের পদচারণায় মুখরিত হয় পুরো মেলা। বাবা মার হাত ধরে শিশুরাও আসে এখানে।

এ দোকান সে দোকান ঘুরে ঘুরে সব বয়সীর মানুষ নিজেদের পছন্দমত বই কিনেছেন।কেউবা বইর পাতা মেলে দেখেছেন। কেউবা এমন মুহুর্তটাকে ক্যামেরায় বন্ধী করে রেখেছেন। কেউবা এসেছেন শুধু বইমেলায় ঘুরতে। শুক্রবার ছিল মেলার দ্বিতীয় দিন।

ছুটির দিন হওয়ায় সরকারি চাকরিজীবীদের পদচারণা ছিলো চোখে পড়ার মতো।বিকাল থেকে রাত পর্যন্ত ভোলার বইমেলায় বেশ সমাগম ছিল ।বৃহস্পতিবার ভোলা জেলা প্রশাসক মোঃ মাসুদ আলম ছিদ্দিক এ মেলার উদ্বোধন করেন। ভোলা জেলা প্রশাসন সপ্তাহব্যাপী পৌর শহরের ওয়াবদুল হক মহাবিদ্যালয়ের মাঠে এ মেলার আয়োজন করেন।

উদ্বোধনের পর পরই ধীরে ধীরে মাঠে আসতে শুরু করে সব বয়সীর মানুষ। লেখক, পাঠক, সাংস্কৃতিক কর্মী,শিক্ষার্থীদের প্রচন্ড ভিড় দেখা যায়।

মেলায় ইসলামিক ফাউন্ডেন, জেলা সরকারি গ্রন্থাগার,প্রথম আলো ভোলা বন্ধুসভা, বাংলাদেশ শিশু একাডেমি ভোলা,জননী বুক হাউজ,আব্দুল্লাহ বুক হাউজ,রাজিব বুক হাউজ,প্যারাডাইস, পাঠশালা, নিউ বুক সেন্টার,পাঠক, বিসমিল্লাহ, জাহাঙ্গীর, মা বই বিতান, হাসান বুক হাউজ,পপি লাইব্রেরি, হাসনাত লাইব্রেরী, আলকোরআন লাইব্রেরি, এস কে বুকস,বিদ্যার্থী, তাওহীদ প্রকাশন,অলিবাজার ডট কম সহ ২১টি স্টল রয়েছে।

ঢাকার প্রকাশনীর তুলনায় ভোলার লেখকদের বই কম হলেও উল্লেখ করার মত রয়েছে কিছু বই। ভোলার লেখক মিলি বসাকের তুমি তুমি নও, বৌরী বসন্তে, কথোপকথন,লেডি ডাফরিন,মেঘের মগ্নতায় জোৎসার। জুলফিকার আলীর জাপানি আদলে বাংলা হাইকু-৩, জাপানি আদলে বাংলা হাইকু-২, ভালোবাসার হৃদপিন্ড, জাপানি আদলে বাংলা হাইকু, সৌরভূমি, একলা বিন্দু ছাই। সুবর্ণা ফারহানা চৌধুরীর স্বপ্ন বুননের অভিযাত্রা। মোঃ মাকসুদুর রহমানের লেবুর সুগন্ধী।এম আরিফুল ইসলামের নীল পদ্ম সহ বেশ কিছু বই মেলায় রয়েছে।আরো বেশ কিছু বই প্রকাশের অপেক্ষায় রয়েছে।

বইমেলার একপাশে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। প্রতিদিন বিকালে বিতা,প্রবন্ধ,নৃত্য আলোচনা সভা এবং নতুন বইয়ের মোড়ক উম্মোচন ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

বৃহস্পতিবার উদ্বোধনের দিনে আলোচনা সভার প্রথমে ঢাকার চকবাজারে আগুনে পুড়ে যাওয়া ব্যক্তিদের জন্য এক মিনিট নিরবতা ও দোয়া মোনাজাত করেন।

ভোলা জেলা প্রশাসনের স্থানীয় সরকার শাখার উপ-পরিচালক মাহমুদুর রহমানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, ভোলা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মাসুদ আলম সিদ্দিক,গেস্ট অব অনার ভোলা জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আবদুল মোমিন টুলু,সদর উপজেলা আওয়ামীগের সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম গোলদার,জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শফিকুল ইসলাম ও মইনুল হোসেন বিপ্লব,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) আব্দুল্লাহ আল মামুন, সরকারি শেখ ফজিলাতুন্নেছা মহিলা কলেজের প্রাক্তন অধ্যক্ষ দুলাল চন্দ্র ঘোষ ও রুহুল আমীন জাহাঙ্গীর, আবদুর রব স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ শাফিয়া খাতুন সহ, রাজনৈতিক,সাংস্কৃতিক ব্যক্তি প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.