ভোলায় করোনা ভ্যাকসিন দেয়া শুরু হবে ৭ ফেব্রুয়ারিঃ সিভিল সার্জন ডা: সৈয়দ রেজাউল ইসলাম

ভোলায় করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন দেয়া শুরু হবে আগামী বরিবার (৭ ফেব্রুয়ারি) থেকে। জেলার সাত উপজেলায় একযোগে এ টিকাদান শুরু হবে। ভ্যাকসিন প্রদানের জন্য জেলা সদরে ৪টিসহ জেলার সাত উপজেলায় ১৬টি কাউন্ডার বসানো হবে। প্রতিটি কাউন্টারে ২ জন নার্স ও ৪ জন স্বেচ্ছাসেবীসহ সর্বমোট ৬৪জন দক্ষ স্বেচ্ছাসেবী ও নার্স ভ্যাকসিন কার্যক্রমে অংশ নিবেন।

ভোলার সিভিল সার্জন ডা: সৈয়দ রেজাউল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, আমারা ভোলাতে প্রথম দাফে ৬০ হাজার ডোস করোনা ভ্যাকসিন পেয়েছি। এসব টিকার মধ্যে জেলা সদরে ১৫ হাজার, দৌলতখান উপজেলায় ৯ হাজার, বোরহানউদ্দিন উপজেলায় ৯ হাজার, চরফ্যাশন উপজেলায় ১২ হাজার, মনপুরা উপজেলায় ৬হাজার, তজুমদ্দিন উপজেলায় ৬ হাজার ও লালমোহন উপজেলায় ৯ হাজার ডোস টিকা পাঠানো হবে। প্রথম পর্যায়ে স্বাস্থ্য বিভাগ, পুলিশ, গনমাধ্যমকর্মী ও জনপ্রতিনিধিসহ ১৭ ক্যাটাগরির মানুষকে এ টিকা দেয়ার কার্যক্রম শুরু হবে।
টিকা পাওয়ার জন্য অ্যাপসের মাধ্যমে অনলাইনে রেজিষ্ট্রেশন করতে হবে। ৩০ হাজার জনকে পূর্নাঙ্গ ডোস দেয়া হবে।
এরআগে গত ২৯ জানুয়ারি বেক্সিমকো ফার্মা’র একটি হিমায়িত কাভার্টভ্যানযোগে ৬০ হাজার ডোস টিকা ভোলা এসে পৌছায়। এসব করোনা টিকা স্বাস্থ্য বিভাগের ‘ইপিআই’ ভবনে সংরক্ষণ করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.