মেঘনায় নৌকা ডুবিতে নিহত জেলে পরিবারকে ২০ হাজার টাকা প্রদান করলেন ইউএনও

গোলাম মাহমুদ শাওনঃঃ

ভোলার মেঘনায় ঝড়ে নৌকা ডুবিতে নিহত জেলে শফিউল্যাহ পরিবারকে বৃহস্পতিবার দুপুরে ২০ হাজার টাকা আর্থিক সহযোগিতা প্রদান করেন বোরহানউদ্দিন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ সাইফুর রহমান।জেলা প্রশাসনের ত্রান তহবিল হতে প্রাপ্ত উল্লেখিত এ অর্থ প্রদান করা হয়েছে।

ডুবে যাওয় নৌকার মাঝি ইব্রাহীম জানান, ২৪ আগষ্ট সোমবার দুপুরে মেঘনা নদীতে মাছ ধরে তজুমদ্দিনের ঘাটে তারা ফিরছিল। ফেরার পথে বাসনভাঙ্গা চরের এলাকায় হঠাৎ ঝড়ের কবলে পড়ে নৌকাটি । এ সময় ৬ মাঝি মাল্লা সহ নৌকাটি মেঘনায় ডুবে যায় ।নিকটবর্তী নৌকা এগিয়ে এসে ৫ জনকে উদ্ধার করে। শফিউল্যাহ (৩৫) নদীতে ডুবে নিখোঁজ হন।
এ ঘটনার, তিনদিন পর ২৬ আগষ্ট বুধবার সকালে নিখোঁজ জেলে শফিউল্যাহর ভাসমান লাশ মেঘনার বাসনভাঙ্গা চর এলাকা থেকে স্থানীয় জেলেরা তার লাশ উদ্ধার করে। সন্ধ্যায় তার লাশ গ্রামের বাড়ি বোরহানউদ্দিন উপজেলার সাচড়া ইউনিয়নের দরুন বাজার গ্রামের পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়।
এদিকে বৃহস্পতিবার দুপুরে বোরহানউদ্দিন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ সাইফুর রহমান ও সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা এ,এফ,এম নাজমুস সালেহীন নিহতের বাড়িতে গিয়ে আর্থিক সহযোগিতা প্রদানসহ সহমর্মিতা জানান।

নিহতের স্ত্রী ইয়াছমিন জানান,পরিবারের একমাত্র উপার্জন ক্ষম ব্যক্তিকে হারিয়ে এখন সে দিশেহারা।নিহতের একমাত্র ছেলে রাসেল (৮) স্থানীয় দরুন বাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্র।নুসরাত (৪) ও সামিয়া (২) নামক তার ২টি কন্যা সন্তান রয়েছে।নিহত শফিউল্যাহর বোবহানউদ্দিন উপজেলার সাচড়া ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের কোতপাল বাড়ির আবদুল আলী কোতপালের ছেলে।
বোরহানউদ্দিন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ সাইফুর রহমান জানান, জেলা প্রশাসনের ত্রান তহবিল থেকে ২০ হাজার টাকা নিহতের স্ত্রীর হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। এ সময় তার সাথে ছিলেন ইউপি সচিব মাইনুদ্দিন চৌধুরী।

Leave a Reply

Your email address will not be published.