সাধারন জনতার দুয়ারে, জনতার এমপি আলী আজম মুকুল

গোলাম মাহমুদ শাওন,বোরহানউদ্দিন(ভোলা) প্রতিনিধি ঃ
জনতার দুয়ারে হাজির,জনতার এমপি আলী আজম মুকুল।সকাল থেকে রাত অবধি তার বিচরণ ঘরে ঘরে। বাজারে বাজারে।উর্দেশ্য একটাই।বাবা-মায়ের মর্যদার আসনে স্থান দেওয়া বোরহানউদ্দিন-দৌলতখান উপজেলার জনগনকে রক্ষা করা।বিপদে ছায়া দেওয়া।কর্মবিমুখ অবস্থায় খাদ্যের ব্যবস্থা করা।মরণঘাতি করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে জনগনকে সচেতন করা।করোনা ভাইরাসের আক্রান্তে পৃথিবীর মোড়ল রাষ্ট্রগুলো যখন লন্ডভন্ড।প্রতিরোধই যখন একমাত্র ভরসা।সেই পেক্ষাপটে সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখা,হাটবাজারে গন জামায়েত না হওয়া,নিত্যান্ত প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকে বাহির না হওয়ার অনুরোধ জানিয়ে বৃহস্পতিবার দিনভর উপজেলার বিভিন্ন বাজারে মাইকিং করছেন ভোলা-২আসনের সংসদ সদস্য আলী আজম মুকুল।এছাড়াও দু উপজেলার জনগনের বাড়িতে বাড়িতে ত্রাণ পৌছানোর কার্যক্রম চলছে।কোথাও কোথাও নিজেই গিয়ে হাজির প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষের দুয়ারে।
বৃহস্পতিবার সকাল থেকে এ কার্যক্রম শুরু করেন।বিকালে উপজেলার সাচড়া,দেউলা,কাচিয়া,টবগী ও হাসাননগর,পক্ষিয়া, ইউনিয়নের বিভিন্ন বাজারে বাজারে জনগনের মধ্যে সচেতনতা সৃষ্টি, সরকারি নির্দেশনা মেনে চলার আহবান জানান। মাগরিবের নামাজ তিনি স্থানীয় স্কুল বাড়ি বাজারের মসজিদে পড়ে মুসুল্লিদের বলেন,আপনার প্রত্যেকে প্রত্যেকের প্রতিবেশিকে বিনা প্রয়োজনে বাজারে আসতে নিরুৎসাহিত করবেন।ইমাম সমাজকে শুক্রবার জুমায় বিষয়টি নিয়ে আলোচনা ও দোয়া মুনাজাত করার আহবান জানান। তিনি বলেন আপনারা আমার বাবা-মা । আজ আপনাদের কাছে আমি একটি দাবি নিয়ে এসেছি। আমাকে কথা দিতে হবে আগামি কয়েকটা দিন আপনারা ঘর থেকে বিনা প্রয়োজনে রেব হতে পারবেন না। তিনি বলেন,আপনারা এখন কর্মহীন হয়ে পড়েছেন। এ সময় আমরা আপনাদের ঘরে ঘরে ত্রাণ পৌছে দিব। কেউ যদি ত্রাণ না পান কিংবা বাসায় যদি খাবার না থাকে তাহলে আমাকে কিংবা উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে ফোন করবেন। সাথে সাথে খাদ্য সামগ্রী আপনার বাসায় আমরা পৌছে দিব। তবুও আপনারা ঘর থেকে বাহির হবেন না। আপনারা মনে রাখবেন পৃথিবীতে জীবনের চেয়ে মূল্যবান আর কিছু নেই ।তাই আপনার এবং আপনার পরিবারের প্রয়োজনে এ সময় ঘর থেকে বের হবেন না। এ সময় তার সাথে উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা মোঃ বশির গাজী ও অফিসার ইনচার্জ মু এনামুল হক ছিলেন। এছাড়া তিনি বিভিন্ন ইউনিয়নে ত্রাণ বিতরণ করেন।

আপনার মন্তব্য জানান