লালমোহনে ওয়ালেটে গাঁজা নিয়ে ঘুরছিলেন এক যুবক

ওয়ালেটে মানুষ যেখানে মোবাইল ফোন আর টাকা-পয়সা রাখেন; সেখানে আসাদুল ইসলাম এলিন (২৯) নামের এক যুবক রাখেন গাঁজা। মঙ্গলবার রাতে ভোলার লালমোহনে ভোলা-চরফ্যাশন আঞ্চলিক মহাসড়কের থানা সংলগ্ন এলাকা থেকে হাতের একটি ওয়ালেট ভর্তি একশত গ্রাম গাঁজাসহ এলিনকে আটক করে পুলিশ।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে লালমোহন থানার এসআই শক্তিপদ মৃধা সঙ্গীয় ফোর্স অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করে। আটককৃত আসাদুল ইসলাম এলিন লালমোহন পৌরসভা ৯ নম্বর ওয়ার্ডের মোতাহার উদ্দিন সড়কের মো. কামরুল ইসলাম মাস্টারের ছেলে। তাকে আটকের পর পুলিশ বাদী হয়ে লালমোহন থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে একটি মামলা দায়ের করেন।

এ ব্যাপারে লালমোহন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাহবুবুর রহমান বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ অভিযান চালিয়ে এলিনকে আটক করে। রাতে থানায় মামলা দায়েরের পর বুধবার সকালে তাকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

অন্যদিকে নামপ্রকাশ না করা শর্তে একাধিক সূত্র জানায়, এলিন লালমোহনের একজন চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী। তিনি পৌর শহরের লাঙলখালী, পাটোয়ারী কান্দি, স্টেডিয়াম ও লঞ্চঘাট এলাকায় মাদক সাপ্লাই দিয়ে আসছেন দীর্ঘদিন ধরে। এসব কাজের জন্য তার রয়েছে একাধিক গ্যাংও। যারা বিভিন্ন সময় সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের সঙ্গে জড়িয়ে পড়েন। এলিনসহ তার গ্যাংকে সমূলে নির্মূলের দাবি স্থানীয় সচেতন মহলের।

সুত্র: দৈনিক যুগান্তর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.