ভোলা বোরহানউদ্দিনে ইলিশ অভয়াশ্রমে সচেতনামূলক নানা কর্মসূচী

  1. ভোলা প্রতিনিধিঃ ইলিশ রক্ষায় ভোলার বোরহানউদ্দিন উপজেলার মেঘনা ও তেতুলিয়া নদীর ৩৭কিঃমি এলাকায় ২ মাস সকল ধরণের মাছ শিকার । এ নিষেধাজ্ঞা কঠোরভাবে বাস্তবায়ণের লক্ষ্যে উপজেলা প্রশাসন ও মৎস্য অধিদপ্তর নানা কর্মসূচি গ্রহণ করছেন।যার ধারাবাহিকতায় বুধবার সন্ধ্যায় মেঘনার আলিমুদ্দিন বাংলাবাজার এলাকার স্বরাজগঞ্জ ঘাটে সচেতনামূলক সভা করা হয়েছে।মার্চ ও এপ্রিল দুইমাস ভোলার বোরহানউদ্দিন উপজেলার দুইপাশে অবস্থিত মেঘনা ও তেতুলিয়া নদীতে ইলিশ অভয়াশ্রম উপলক্ষ্যে সকল ধরণের মাছ ধরা নিষেধ। সরকারের এ কর্মসূচী বাস্তবায়নের জন্য প্রস্তুতি কার্যক্রম বাস্তবায়িত হচ্ছে উপজেলাজুড়ে। উপজেলার বিভিন্ন মাছ ঘাট, জেলে পল্লী, মাছ বাজার ও গুরুত্বপূর্ণ স্থানসমূহে চলছে প্রচার কার্যক্রম। উপজেলায় আজ কয়েকটি সভার সাথে ইলিশ রক্ষা টাস্কফোর্স কমিটির সভাও অনুষ্ঠিত হয়। সকালে তেতুলিয়া নদীর গংগাপুর ইউনিয়নের নয়নের খাল ও দাড়িয়া এলাকায় সচেতনতামূলক সভা অনুষ্ঠিত হয়। বিকাল ৩ টায় বড়মানিকা ইউনিয়নের সরাজগঞ্জ মাছঘাটে অনুষ্ঠিত হয় সচেতনতা সভা। এতে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো: বশির গাজী, আরও উপস্থিত ছিলেন ক্ষুদ্র মৎস্যজীবী জেলে সমিতির উপজেলা সভাপতি আবু ছায়েদ মাঝি, পক্ষিয়া ইউনিয়নের প্যানেল চেয়ারম্যান হুমায়ুন কবির, জাতীয় মৎস্যজীবী সমিতির বড়মানিকা ইউনিয়ন সভাপতি দাইমুদ্দিনসহ স্থানীয় জেলে, মৎস্যজীবী, আড়ৎদার, মাছ ব্যবসায়ী ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিগণ। গতকাল ২৫ তারিখ সকালে সাচড়া ইউনিয়নের দরুণ, কাচারি খাল, সোনাবাজার ও নদীপাড়গুলোতে এবং বিকালে জয়া বাজার ও মাছ ঘাটে সচেতনতামূলক সভা অনুষ্ঠিত হয়। ২৫ ও ২৬ তারিখ দিনব্যাপী সমগ্র উপজেলা ও নদীর পাড় এবং মাছঘাটগুলোতে মাইকিং করা হয়। লঞ্চঘাট, মাছঘাট, মাছবাজার ও গুরুত্বপূর্ণ স্থানসমূহে সচেতনতামূলক ব্যানার টানানো হয়েছে। আগামীকালও দিনব্যাপী প্রচার কার্যক্রম চলবে মির্জাকালু মাছঘাট, দিদার মাঝি মাছঘাট ও মেঘনার অন্যান্য মাছঘাটগুলোতে।

আপনার মন্তব্য জানান