ভোলার প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের লাইব্রেরিকে গতিশীল করতে হবে

নিজস্ব প্রতিবেধক, ভোলা বার্তা।

ভোলার প্রতিটি স্কুল কলেজের লাইব্রেরিকে আরও গতিশীল করার আহ্বান জানানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকালে ভোলা প্রেসক্লাবে অনুষ্ঠিত বিশ্ব সাহিত্য কেন্দ্র পরিচালিত ভ্রাম্যমান লাইব্রেরির পাঠক ফোরাম আয়োজিত এক কর্ম-পরিকল্পনা ও মতবিনিময় সভায় বক্তারা এ আহ্বান জানান। এসময় বক্তারা বলেন, দেশের প্রতিটি স্কুল ও কলেজে লাইব্রেরি রয়েছে। রয়েছে বেতনভুক্ত লাইব্রেরিয়ান। কিন্তু প্রায় সকল প্রতিষ্ঠানেই লাইব্রেরির কার্যক্রম স্থবির হয়ে পড়েছে। বিশেষ করে ভোলা জেলার কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের লাইব্রেরিই আর আগের মত গতিশীল নেই। তাই শিক্ষার্থীদেরকে লাইব্রেরিমূখী করে তোলার জন্য সরকারি বেসরকারি বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করা উচিত।
দৈনিক বাংলার কন্ঠ সম্পাদক এম হাবিবুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ওই মত বিনিময় সভায় কবি-সাহিত্যিক, শিক্ষাবিদ, সুশীল সমাজের নেতৃবৃন্দ, শিক্ষক-ছাত্রসহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ অংশ নিয়েছেন।
ভোলা প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সামস উল আলম মিঠুর সঞ্চালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন প্রবীণ শিক্ষাবিদ ভোলা সরকারি ফজিলাতুন্নেছা মহিলা কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ প্রফেসর রুহুল আমিন জাহাঙ্গির, ব্যাংকের হাট কলেজের অধ্যক্ষ হারুনুর রশিদ, ভোলা জেলা মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি টবগি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষক শাহ নেওয়াজ চন্দন, মুসলিম মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবু তাহের, আরটিভি জেলা প্রতিনিধি অমিতাভ রায় অপু, ভোলা জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাহী সদস্য এ্যাডভোকেট খায়রুল ইসলাম, ভোলা জেলা হিন্দু বৈদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের আহ্বায়ক অবিনাশ নন্দি, বাংলাবাজার ফাতেমা খানম কলেজের প্রভাষক কবি হাওলাদার মাকসুদ, ওবায়দুল হক কলেজের প্রভাষক কামরুল ইসলাম হিরণ, নাগরিক ফোরামের কামরুজ্জামান বাহাউদ্দিন, ভ্রাম্যমান লাইব্রেরির ভোলার দায়িত্ব নিয়োজিত মাসুদ রানা, পাঠক ফোরামের সদস্য সচিব মো: ফিরোজ প্রমূখ। সভার শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ভ্রামমান লাইব্রেরির পাঠক ফোরামের আহ্বায়ক জুন্নু রায়হান। এ সময় তিনি বলেন, আলোকিত মানুষ চাই এই স্লোগান নিয়ে অধ্যাপক আব্দুল্লাহ আবু সাঈদ স্যার যে ভ্রাম্যমান লাইব্রেরি চালু করেছেন। ওই লাইব্রেরি গত ৫ বছর ধরে ভোলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি শহরের অলিতে গলিতে, গ্রাম গঞ্জে পাঠক সৃষ্টি করে যাচ্ছে। এ পর্যন্ত ওই লাইব্রেরির প্রায় ১ হাজার ৯শত সদস্য পাঠক হয়েছেন। এই সংখ্যা আরও বাড়ানোর লক্ষে ভোলা জেলা পাঠক ফোরাম বিভিন্ন উদ্যোগে গ্রহণ করেছে। তারই ধারাবাহিকতায় নতুন নতুন কর্মপরিকল্পনা গ্রহণের লক্ষে এই মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়। মতবিনিময় সভায় ভোলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের লাইব্রেরিকে গতিশীল করার পাশাপাশি পাড়ায় মহল্লায় পাঠক ফোরামের কার্যক্রম ছড়িয়ে দেয়ার পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়।
উল্লেখ্য, আগামী ১১ এপ্রিল বিকালে পুণরায় ভোলা প্রেসক্লাব মিলনয়তনে পাঠক ফোরামের এই কর্ম-পরিকল্পনা ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হবে।

আপনার মন্তব্য জানান