সুপ্রীম কোর্ট বার সদস্যদের উন্নয়নে কাজ করতে চান ভোলার ছেলে এ্যাড. কাজী আখতার

বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্ট বার এসোসিয়েশন নির্বাচন ২০১৯-২০২০ ইং এর কর্মকান্ড এগিয়ে চলছে। সব কিছু ঠিক থাকলে আগামী ১৩ ও ১৪ মার্চ ভোট অনুষ্ঠিত হবে। এ নির্বাচনকে সামনে রেখে ভোটারদের মন জয় করতে প্রার্থীদের ঘামঝরা পরিশ্রম করতে হচ্ছে দিন রাত।

এবারের নির্বাচনে প্রার্থী হিসেবে অংশগ্রহণ করছেন তরুণ ব্যারিস্টার কাজী আখতার হোসাইন। কার্যনির্বাহী সদস্য পদে তার ব্যালট নং ৪। অন্য প্রার্থীদের মত তিনিও ছুটছেন ভোটারদের কাছে। চাইছেন ভোট। দিচ্ছেন কাজ করার প্রতিশ্রুতি।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, সদালাপী এবং নিয়মিত আইনজীবী হিসেবে সুপ্রীম কোট বারে কাজী আখতারের পরিচিতি রয়েছে। এছাড়াও বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্ট বার এসোসিয়েশনের ইমেজ অক্ষুন্ন রেখে আগামীতে আরো ভাল কাজ করার নেতা হিসেবে কাজী আখতার হোসাইনকে নির্বাচিত করার বিষয়ে ইতিবাচক ভাবছেন ভোটাররা। সুপ্রীম কোট প্রাঙ্গণে সরব থাকা এই তরুণ ব্যারিস্টার এবারের ভোটে জয়লাভ করবেন বলেও ভোটারদের বিশ্বাস। জানা গেছে, শিক্ষা জীবন থেকেই কাজী আখতার হোসাইন ছিলেন মেধাবী। ১৯৯৭-৯৮ শিক্ষাবর্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন অনুষদের মেধাবী ছাত্র কাজী আখতার মুক্তিযোদ্ধা শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান হলের আবাসিক ছাত্র ছিলেন। এসময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আন্ত: হল বিতর্ক প্রতিযাগিতার সমগ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যে ১ম হন। ২০০৪ সালে প্রথম আইনজীবী হিসেবে সনদ পান। ২০০৬ সালে হাইকোর্টের আইনজীবী হিসেবে তালিকাভুক্ত হন। ২০১৪ সালে লন্ডনের ঐতিহ্যবাহী লি:কন ইন থেকে ব্যারিস্টার এট ল সম্পন্ন করেন। শিক্ষাজীবন শেষে পর পর দুইটি এডমিন ক্যাডারসহ গুরুত্বপূর্ণ ২টি পদে নিয়োগ পেলেও এদেশে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় যোগ দেন বাংলাদেশ সূপ্রীমকোর্টের একজন আইনজীবী হিসেবে। পরিশ্রম, মেধা ও মননশীলতায় সবার মাঝে নিজের অবস্থান তৈরি করে নেন তিনি।

এবিষয়ে জানতে চাইলে কাজী আখতার হোসাইন বলেন, বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্ট বার এসোসিয়েশন নির্বাচন:২০১৯ -২০২০ এর আমি সদস্য প্রার্থী। ভোটে জয়লাভ করার আগ্রহ সব প্রার্থীর থাকে। তাই জয়লাভের আশায় সম্মানীত ভোটারদের কাছে ভোট প্রার্থনা করছি। তারা আমাকে বেশ সাড়া দিচ্ছেন। বিজ্ঞ আইনজীবীদের বিভিন্ন পরার্মশ পাচ্ছি। তাদের দেওয়া পরামর্শগুলো মাথায় নিয়েই কাজ করছি।

তিনি বলেন, সুপ্রীম কোর্ট বারের সদস্যদের সার্বিক উন্নয়নে কাজ করতে চাই। সুপ্রীম কোর্ট বারের ইমেজ সমুন্নত রাখতে আমি প্রাণপন চেস্টা করবো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.