ভোলা পৌরসভার সকল কার্যক্রম বন্ধ, বিপাকে পৌরবাসী

গ্রুপ দ্বন্দ্বে নাকাল ভোলার পৌরসভার বাসিন্দারা। একদিকে কর্মচারী গ্রুপ, অন্যদিকে কাউন্সিলর গ্রুপ। এই গ্রুপের দ্বন্দ্বে পৌরবাসীর সকল সেবা বন্ধ করে দিয়েছেন পৌর কর্মচারীরা। তাদের দাবি, কাউন্সিলররা তাদের সঙ্গে অসৌজন্যমূলক আচরণ করছেন। অপরদিকে কাউন্সিলর গ্রুপের প্যানেল মেয়রের দাবি, কর্মচারীরা সাবেক কর্মকর্তাদের চুরিতে সাহায্য করছেন।

অভিযোগ-পাল্টা অভিযোগ আর দ্বন্দ্বে পৌরসভার সকল কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। বন্ধ করে দেয়া হয়েছে সকল নাগরিক সুযোগ সুবিধা। এতে ভোলা শহর দুর্গন্ধের শহরে পরিণত হয়েছে।

রাতে বাতি না জ্বলায় মার্কেটসহ পৌর এলাকা ভুতুড়ে এলাকায় পরিণত হয়েছে।

ভোলা পৌরসভা সার্ভিস এসোসিয়েশনের সভাপতি মীর আলাউদ্দিন বলছেন, ভোলা পৌরসভার সকল সেবা অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ থাকবে। এই অবস্থায় নাগরিক সেবা বন্ধ থাকায় পবিত্র রমজানে মানবেতর অবস্থায় পড়েছেন ভোলার পৌর নাগরিকরা।

বৃহস্পতিবার সকাল থেকে ভোলা পৌরসভার সকল কার্যক্রম এবং নাগরিক সেবা বন্ধ করে দেয় কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। পৌরসভা সার্ভিস এসোসিয়েশন এর সভাপতি মীর আলাউদ্দিন নোটিশের মাধ্যমে জানান, উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ পৌরসভা পরিদর্শনকালে পৌরসভার ভাবমূর্তি বিনষ্ট করা, পৌর প্রশাসন পরিচালনায় কতিপয় কাউন্সিলরের অযাচিত হস্তক্ষেপ এবং কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সঙ্গে অসদাচরণ এর প্রতিবাদে পৌরসভার সকল কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

এদিকে ভোলা পৌরশহর এবং সকল সড়কের লাইটিং গতকাল সন্ধ্যা থেকে বন্ধ দেখা যায়। এতে চরম আতঙ্কে রয়েছে পৌর নাগরিকরা। এছাড়ও ময়লা আবর্জনা পরিস্কার না করায় সাজানো শহরটি দুগন্ধের শহরে পরিণত হয়েছে।

এ ব্যাপারে ভোলা পৌরসভার প্যানেল মেয়র-১ মঞ্জুরুল আলম জানান, সচিবের রুম থেকে একটি এসি চুরি হয়েছে। এ কারণে পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলী জসিম উদ্দিন আরজু বিরুদ্ধে মামলা করতে বলেছি। সচিব মামলা করেনি, এজন্য সচিবকে রাগ করেছি। তারপর এসি চুরির অভিযোগে আমি বাদি হয়ে মামলা করেছি। এতে কর্মচারীরা ক্ষিপ্ত হয়ে সকল প্রকার সেবা বন্ধ করে দেন।

এ বিষয়ে সচিব আবুল কালাম আজাদ জানান, এসিটি নির্বাহী প্রকৌশলী জসিম উদ্দিন আরজু তিনি নিজের অর্থ দিয়ে কিনেছিলেন। চুরি হয়নি তার এসি, তিনি সেটি খুলে নিয়ে গেছেন। এছাড়া আমি আর কিছু জানি না।

নির্বাহী প্রকৌশলী জানান, আমি নুতন যোগদান করে ছুটিতে রয়েছি। দু’গ্রুপের দ্বন্দ্বের খবর পৌর সহকারি ইঞ্জিনিয়ার রাসেল সাহেবের কাছ থেকে শুনেছি। আমি এসে দ্বন্দ্ব মেটানোর জন্য সকলকে নিয়ে কাজ করবো।

Leave a Reply

Your email address will not be published.